ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১

চলতি দায়িত্বপ্রাপ্তদের স্থায়ী পদোন্নতির দাবী জানাল বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২১-০৭-১৮ ২৩:২২:০৩ /

সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্বে কর্মরত প্রায় আঠারো হাজার প্রধান শিক্ষককে স্থায়ীভাবে প্রধান শিক্ষক হিসাবে পদোন্নতি প্রদানের দাবী জানিয়ে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির দেশের উপজেলা শাখাগুলো হতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের ইমেইলে পত্র পাঠানো হয়েছে।

আজ রোববার (১৮ জুলাই) দেশের অধিকাংশ এলাকা থেকে এ আবেদন পাঠানো হয়। আবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৯ সাল হতে প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক হতে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি বন্ধ থাকার পর ২০১৭ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজে গতিশীলতা আনার জন্য সিনিয়রিটির ভিত্তিতে সহকারী শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্বে পদায়ন করা হয়। শুরু থেকেই প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব পালনের জন্য তাদেরকে মাসিক এক হাজার পাঁচশ টাকা হিসাবে দায়িত্ব পালন ভাতা দেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ শিক্ষা'র সাথে আলাপকালে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ও পদোন্নতি বাস্তবায়ন পরিষদের সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান শাহীন বলেন, উপজেলা শিক্ষা অফিস হতে ২০১৩ সালের নিয়োগবিধি অনুসরণ করে পাঠানো গ্রেডেশন তালিকা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর হতে যাচাই এর পর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এসকল শিক্ষককে জেলাভিত্তিক প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্ব প্রদান করার প্রজ্ঞাপন জারী করে।

শুরু থেকেই অত্যন্ত সুনাম এবং দক্ষতার সাথে এসকল শিক্ষক দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৩ সালের নিয়োগবিধিতে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতির ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন শিক্ষাগত যোগ্যতা ছিল প্রশিক্ষণসহ এইসএসসি। কিন্ত বর্তমানে ২০১৯ সালের নিয়োগবিধিতে সহকারী শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতিতে শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি উল্লেখ না থাকা এবং সমন্বিত গ্রেডেশন তালিকা প্রণয়নে বহিরাগত জটিলতার কারণে চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত এসব শিক্ষকদের অনেককেই সহকারী শিক্ষক পদে ফেরত যেতে হতে পারে। যা তাদের জন্য অবমাননাকর ও অমানবিক। তিনি পুণরায় এসব শিক্ষককে গ্রেডেশন তালিকায় অন্তর্ভূক্ত না করে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে সরাসরি পদোন্নতির দাবী জানান।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ শিক্ষা'র সাথে আলাপকালে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. আবুল কাসেম জানান, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পত্র অনুযায়ী এসকল শিক্ষকের পদোন্নতির জন্য চলতি দায়িত্ব দেবার দুই মাস পার হবার পূর্বেই পদোন্নতির জন্য নির্ধারিত কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানোর কথা ছিলো। কিন্ত গত তিন চার বছরেও এটা না করা দুঃখজনক। তিনি চলতি দায়িত্বে পদায়নের পর অন্যান্য ডিপার্টমেন্টের মতো চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল শিক্ষকের পদোন্নতির দাবী জানান। তিনি বলেন, শিক্ষকদের ন্যায়সঙ্গত সকল দাবী পূরণে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি নিয়মতান্ত্রিকভাবে কর্মসূচি চালিয়ে যাবে।

বাংলাদেশ শিক্ষা// আলম

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

গণটিকাদান কার্যক্রমে শিক্ষকদের সহযোগিতার নির্দেশনা

গণটিকাদান কার্যক্রমে শিক্ষকদের সহযোগিতার নির্দেশনা

ডেঙ্গু রোধে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য যে নির্দেশনা দিল ডিপিই

ডেঙ্গু রোধে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য যে নির্দেশনা দিল ডিপিই

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি