ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২

যে কারণে পিছিয়ে যাচ্ছে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২২-০১-০৮ ২২:২৬:১৭ /

ফাইল ছবি
সারা দেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই বিতরণ ও ক্লাস শুরুসহ বিভিন্ন জটিলতায় চলতি মাসে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হচ্ছে না। তবে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে থাকলে ফেব্রুয়ারিতে নিয়োগ পরীক্ষা হতে পারে।

এর আগে গত ডিসেম্বরে শিক্ষক পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও এইচএসসি পরীক্ষার কারণে পিছিয়ে জানুয়ারিতে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু এ মাসে বই বিতরণ, ক্লাস শুরু করাসহ নানা জটিলতায় তা সম্ভব হচ্ছে না।

জানা গেছে, এবার প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। এ নিয়োগ পরীক্ষার বিষয়ে টেকনিক্যাল কমিটির বৈঠক হয়েছে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে শুরু হতে পারে এ পরীক্ষা। তবে, পরিস্থিতি খারাপ হলে ফেব্রুয়ারি মাসেও পরীক্ষা হবে না।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। কিস্তু বই বিতরণ ও ক্লাস শুরুসহ বিভিন্ন কারণে হয়নি। এখন এটি নিয়ে সভা করেছে মন্ত্রণালয়। সেখানে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ পরীক্ষা শুরু করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে, পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর।

উল্লেখ, এবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩২ হাজার ৫৭৭ শিক্ষক নিয়োগের বিপরীতে ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন আবেদন করেছেন।

বিডিশিক্ষা//এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন শপথবাক্য পাঠের নির্দেশ

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন শপথবাক্য পাঠের নির্দেশ

যে কারণে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে স্ট্যান্ডরিলিজ করা হলো

যে কারণে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে স্ট্যান্ডরিলিজ করা হলো

যে কারণে পিছিয়ে যাচ্ছে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

যে কারণে পিছিয়ে যাচ্ছে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা