ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২

এমপিও শিটে মাদরাসার পদবি সংশোধন না হলে নিয়োগে ডিজির প্রতিনিধি থাকবেনা

জাফর আহম্মেদ

২০২২-০৯-২৫ ২৩:৫০:৫৮ /

ফাইল ছবি

এমপিও শিটে মাদরাসার  শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি সংশোধন না হলে কর্মচারী নিয়োগে ডিজির প্রতিনিধি দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর। অধিদপ্তর থেকে ইতোমধ্যে মাদরাসার এমপিও শিটে শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি সংশোধনের নির্দেশ দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু অল্প কিছু মাদরাসা থেকে পদবি সংশোধনের আবেদন দাখিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে অধিদপ্তর।

মাদরাসার এমপিও শিটে শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি সংশোধনের আবেদন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার মাধ্যমে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে পুনরায় নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এসব নির্দেশনা দিয়ে চিঠি সব মাদরাসার প্রধান ও সভাপতিকে পাঠানো হয়েছে।

রোববার অধিদপ্তর থেকে মাদরাসাগুলোর প্রধান ও সভাপতিতে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়েছে, এমপিওভুক্ত মাদরাসার এমপিও শিটে অনেক শিক্ষক-কর্মচারীর পদবি ও বিষয় উল্লেখ নেই। যার কারণে জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা অনুযায়ী মাদরাসার বিষয়ভিত্তিক প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না।

এর ফলে প্রাপ্যতা নির্ধারণ, নতুন এমপিওভুক্তি, মাদরাসা কর্তৃক এনটিআরসিএতে দেয়া রিকুইজিশনের সত্যতা যাচাইসহ মাদরাসার সঠিক ব্যবস্থাপনায় দারুণভাবে জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি ও বিষয় সংযোজন বা সংশোধন হালনাগাদ করার জন্য সব অধ্যক্ষ ও সুপারকে বলা হয়েছে। এখন থেকে কোন মাদরাসার এমপিওভুক্ত সব শিক্ষক-কর্মচারীর পদবি ও বিষয় এমপিও শিটে হালনাগাদ করা না থাকলে এনটিআরসিএ বহির্ভূত পদে নিয়োগের লক্ষ্যে মাদরাসার নিয়োগ বোর্ডে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কোন প্রতিনিধি (ডিজি প্রতিনিধি) মনোনয়ন দেয়া হবে না। 

গতকাল শনিবার মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে মাদরাসাগুলোকে শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি ও বিষয় সংশোধনের নির্দেশ দেয়া হয়েছিলো। অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়েছে, এমপিওভুক্ত মাদরাসাগুলোর এমপিও শিট পর্যালোচনা করে দেখা যায় অধিকাংশ শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি ও বিষয় উল্লেখ নেই। বিভিন্ন সময় মাদরাসা থেকে এমপিও শিটের পদবি ও বিষয়বিহীন সব শিক্ষক-কর্মচারীর আবেদন একত্রে না পাঠিয়ে ভিন্ন ভিন্নভাবে পদবি ও বিষয় সংশোধন ও সংযোজনের আবেদন পাঠানো হয়। ফলে, একই মাদরাসার ভিন্ন ভিন্ন সময়ে দাখিল করা আবেদন নিষ্পত্তি করতে একদিকে সময়ের অপচয় হয় ও মাদরাসার বিষয় ও পদবির প্রাপ্যতা নির্ধারণ, নিয়োগ যাচাই, এমপিওভুক্তি ও অন্যান্য তথ্য নিশ্চিতকরণে আবেদন নিষ্পত্তিতে জটিলতা সৃষ্টি হয়।

 নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে প্রতিটি মাদরাসার শিক্ষকদের পদবি ও বিষয় নির্ধারণের প্রয়োজনীতা রয়েছে। গত ১৩ জানুয়ারি মাদরাসার সব শিক্ষক-কর্মচারীর পদবি ও বিষয়ে সংশোধনের জন্য অধিদপ্তর নির্দেশনা দিয়েছিলো। কিন্তু অল্প কিছু মাদরাসা থেকে আবেদন দাখিল করা হয়েছে ফলে সব মাদরাসার এমপিও শিটের পদবি ও বিষয় হালনাগাদ করা সম্ভব হচ্ছে না। 

রব্ অধিদপ্তর আরও বলছে, পদবি ও বিষয় সংশোধনের আবেদন সহজে নিষ্পত্তির জন্য সর্বশেষ এমপিও শিটের অনুরূপ কপি গভর্নিং বডি বা ম্যানেজিং কমিটির রেজুলেশনে সুপারিশসহ পাঠাতে হবে। পদবি ও বিষয় সংশোধনের আবেদনের ক্ষেত্রে সর্বশেষ এমপিও শিটের পদবি ও বিষয় ছাড়া অন্যান্য কলাম অপরিবর্তিত রাখতে হবে। 

মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর আরও বলছে, এমপিভুক্ত মাদরাসাগুলোর এমপিও শিটে শিক্ষক-কর্মচারীদের পদবি ও বিষয় সংযোজন-সংশোধনের জন্য সংশ্লিষ্ট পদ ও বিষয়ে পত্রিকার বিজ্ঞপ্তির কপি, নিয়োগ বোর্ডের সুপারিশ ও ফল শিট, গভর্নিং বডি-ম্যানেজিং কমিটির অনুমোদন, নিয়োগ পত্র, যোগদান পত্র, পদবি ও বিষয় সংশ্লিষ্ট অ্যাকাডেমিক ও পেশাগত সনদ, মাদরাসার হালনাগাদ শিক্ষক-কর্মচারীর তালিকা ও বেতন বিলের কপি, সংশোধন বিষয়ে গভর্নিং বডি বা ম্যানেজিং কমিটির রেজুলেশন, প্রয়োজনীয় আনুষঙ্গিক কাগজপত্র ও ডকুমেন্ট যথাযথ সত্যায়ন করে এমপিও শিটে পদবি ও বিষয়বিহীন সব শিক্ষক-কর্মচারীর পদবি ও বিষয় সংযোজন বা সংশোধনের আবেদন একত্রে জেলা শিক্ষা অফিসার বা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের মাধ্যমে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে মাদরাসার প্রধানদের এ দায়িত্ব পালন করতে হবে।

বিডি শিক্ষা/জাআ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

যে কারণে শিক্ষক কারাগারে

যে কারণে শিক্ষক কারাগারে

শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা,পরীক্ষা হবে যে ২৪ জেলায়

শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা,পরীক্ষা হবে যে ২৪ জেলায়

যে কারণে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে বিদেশে উচ্চ ‍শিক্ষা

যে কারণে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে বিদেশে উচ্চ ‍শিক্ষা