ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২

বদলি নির্দেশিকা সংশোধনের ফলে শিক্ষকরা যে সুবিধা পাবেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২২-১০-১৮ ০৯:৩৪:৫৯ /

ফাইল ছবি
দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বদলির নির্দেশিকা সংশোধন করা হয়েছে। বদলির শর্তের ৩.৩ ধারা শিথিল করেছে সরকার। এ ধারা অনুসারে চারজনের কম শিক্ষক থাকা বা শিক্ষক-ছাত্র অনুপাত ১:৪০ এর বেশি থাকা স্কুলগুলোর শিক্ষকরা বদলির আবেদনের সুযোগ পাননি। কিন্তু সংশোধিত নির্দেশিকা অনুসারে এ ধরণের স্কুলগুলো শিক্ষকদের প্রতিস্থাপন বা পদায়ন সাপেক্ষে বদলির সুযোগ দেয়া হয়েছে। আর দুই শিফটে পরিচালিত স্কুলগুলোর যে কোনো একটি শিফটের শিক্ষার্থীর সংখ্যার মধ্যে যে সংখ্যা বেশি হবে তাকে ১:৪০ অনুপাত বিবেচনায় শিক্ষকরা বদলির সুযোগ পাবেন। শিক্ষকদের বদলির সংশোধিত নির্দেশিকাটি প্রকাশ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। বদলির নির্দেশিকা সংশোধন হওয়ায় খুশি শিক্ষকরা। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে বদলি সংক্রান্ত অনলাইন সফটওয়ার আপগ্রেডের পর নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী শিক্ষকরা আবেদন করার সুযোগ পাবেন।

দীর্ঘ তিন বছর বন্ধ থাকার পর গত ১৫ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বদলির আবেদন গ্রহণ শুরু হলেও শিক্ষকরা বদলি নির্দেশিকার বিভিন্ন ধারার কারণে বদলি হতে পারছিলেন না। বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে আবেদন পেশ করা হলে নির্দেশিকাটি সংশোধনের উদ্যোগ নেয়া হয়।

সংশোধিত নির্দেশিকা অনুসারে, যেসব স্কুলের চার জন বা তার কম সংখ্যক শিক্ষক কর্মরত আছেন বা শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত ১:৪০ এর বেশি রয়েছে সেসব স্কুল থেকে সাধারণভাবে শিক্ষক বদলি করা যাবে না। তবে, প্রতিস্থাপন বা পদায়ন সাপেক্ষে বদলি করা যাবে। শিক্ষা ও শিক্ষার্থী অনুপাত নির্ধারণের ক্ষেত্রে ডাবল শিফটের শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনাকারী স্কুলগুলোর ক্ষেত্রে যেকোনো এক শিফটের শিক্ষার্থীর সংখ্যার মধ্যে যে সংখ্যা বেশি তবে তা ১:৪০ হিসেবে বিবেচিত হবে।

উপজেলার মোট পদের সর্বাধিক ১০ শতাংশ পদে উপজেলার বাইরের শিক্ষকরা বদলি হওয়ার সুযোগ পাবেন। কিন্তু সংশোধিত নির্দেশিকায় শিক্ষকদের স্বামী বা স্ত্রীর স্থায়ী ঠিকানায় বদলির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ পূরণের শর্ত শিথিল করা হয়েছে। তবে, চাকরির বিজ্ঞপ্তির আগে বিয়ে হলে শিক্ষক স্বামী বা স্ত্রী স্থায়ী ঠিকানায় বদলির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ কোটা পূরণের শর্তেও আওতায় আসবেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. আবুল কাসেম ও সাধারণ সম্পাদক এ,কে,এম মোস্তাফিজুর রহমান বাংলাদেশ শিক্ষা.কমকে বলেন, শিক্ষকদের বদলির নির্দেশিকা সংশোধন করায় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমরা শিক্ষকরা প্রতিস্থাপিত বদলির আবেদনের সুযোগ চেয়েছিলাম, তা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে। কিন্তু শিক্ষকদের বদলির আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে। অনেক শিক্ষক নানা শর্তের কারণে বদলির আবেদন করতে পারেনি। আমরা ফের বদলির আবেদন নেয়ার দাবি জানাই। নির্দেশিকা অনুসরণ করে এর সুফল যেন শিক্ষকরা পায় তার ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাচ্ছি।

বিডিশিক্ষা// এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের বার্ষিক মূল্যায়নের যে নির্দেশনা দিল প্রাগম

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের বার্ষিক মূল্যায়নের যে নির্দেশনা দিল প্রাগম

চাকুরী স্থায়ীকরণের বিষয়ে নতুন অফিস আদেশ

চাকুরী স্থায়ীকরণের বিষয়ে নতুন অফিস আদেশ

ঘূর্ণিঝড় ‘সিত্রাং’ এর কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

ঘূর্ণিঝড় ‘সিত্রাং’ এর কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা